জগা-খিচুড়ি প্রতারক-প্রতারনা সাহায্য

Bkash Mobile Banking নিয়ে কিছু অভিজ্ঞতা ।

Bkash Mobile Banking নিয়ে কিছু অভিজ্ঞতা ।

আসসালামু আলাইকুম। কেমন আছেন বন্ধুরা? নিশ্চয়ই অনেক অনেক ভালো 🙂

ব্রাক ব্যাংক লিমিটেড এর একটি সেবা হল Bkash Mobile Banking . চলমান সময়ে এই বিকাশ এর মাধ্যমে আমরা টাকা-পয়সা লেনদেন করে থাকি। আমাদের সময় এবং পরিশ্রম অনেক কমিয়ে দিয়েছে এই মোবাইল ব্যাংকিং কোম্পানীগুলো। যাইহোক আসল কথা চলে আসি।

       Bkash Mobile Banking নিয়ে সবারই কম বেশী অভিজ্ঞতা আছে। আজকে আমি আপনাদের জন্য আমার একটি সাম্প্রতিক অভিজ্ঞতার কথা শেয়ার করতে চাচ্ছি। আসুন শুরু করা যাক ঃ-

প্রথমেই বলি Bkash Mobile Banking এর জন্য আপনাকে একটি মোবাইলের সীম, ন্যাশনাল আইডি কার্ড এর কপি এবং পাসপোর্ট সাইজের ছবি দিতে হবে। এই তথ্য টুকু আমরা সবাই জানি। এসব তথ্য দেয়ার পরে একজন বিকাশের এজেন্ট আপনার মোবাইল সীমটিতে বিকাশের একটি একাউন্ট খুলে দিবেন যা ৭২ ঘন্টা সময়ের মধ্য চালু হয়ে যাবে। উক্ত ৭২ ঘন্টা সময়ের মধ্য আপনার বিকাশ ওয়ালেট এ টাকা আসবে কিন্তু আপনি টাকা তুলতে পারবেন না। এসব বিষয় আপনারা জানেন। তারপরেও বলার কারন আছে।

কি সেই কারন? আমাদের ন্যাশনাল আইডি কার্ড দিয়েই মুলত এই বিকাশ ওয়ালেটটি খোলা হয়। এটাই তাদের কাছে মুখ্য বিষয়।

আসুন এবার মুল কথায় ফেরা যাক। গত সপ্তাহে আমার বিকাশ ওয়ালেট এ লেনদেনের যে সীমা আছে তা ছাড়িয়ে যায়। স্বভাবতই আমি চিন্তায় পরে যাই। কারন বিকাশ ওয়ালেট এ টাকা আছে কিন্তু তুলতে পারছি না। তাই বাধ্য হয়ে ওদের কাস্টমার কেয়ার কল দিলাম। আমার সাথে যে কথোপকথন হয় তা নিচে দেখুন –

কাস্টমার ম্যানেজার – বলুন আপনাকে কিভাবে সাহায্য করতে পারি?

আমি – আমার বিকাশের একাউন্ট এর লেনদেনের সীমা ছাড়িয়ে গেছে। আমি এখন কিভাবে টাকা তুলতে পারি?

কাস্টমার ম্যানেজার – আপনি বুথ থেকে টাকা তুলতে পারবেন। তারজন্য আপনাকে এটিএম এর পিন চালু করতে হবে।

আমি – কিভাবে করতে পারি তা যদি বলতেন।

কাস্টমার ম্যানেজার – দয়া করে কিছু তথা দিয়ে আমাকে সাহায্য করুন। আপনার ন্যাশনাল আইডি কার্ড এর নাম্বারটি বলুন।

আমি – ন্যাশনাল আইডি কার্ডের নাম্বার টি বললাম।

কাস্টমার ম্যানেজার – আপনার সর্বশেষ দুটি ট্রানজেকশান এর নাম্বার বলুন।

আমি- আসলে সর্বশেষ ট্রানজেকশান এর নাম্বার তো ভুলে গেছি। এস এম এস ও ডিলেট করে ফেলেছি।

কাস্টমার ম্যানেজার – তাহলে তো আমার কিছু করার নেই স্যার।

আমি- আমার সব তথ্য যদি সঠিক থাকে তবেও কি পারবো না?

কাস্টমার ম্যানেজার – জ্বী না স্যার।

আমি – তাহলে কি আপনাদের কাস্টমার সার্ভিস এ যাবো? আমার সকল তথ্য প্রমান যদি ঠিক থাকে তবে তো পারবো?

কাস্টমার ম্যানেজার – জ্বী না স্যার।

আমি – মানে বুঝলাম না। যদি আমার সকল তথ্য প্রমান ঠিক থাকে তবুও দিবেন না। কেন?

কাস্টমার ম্যানেজার –  আপনার সর্বশেষ দুটি ট্রানজেকশান এর নাম্বার না বলতে পারলে আমরা কিছুই করতে পারবো না। আপনাকে আপনার সর্বশেষ দুটি ট্রানজেকশান এর নাম্বার বলতেই হবে।

আমি – আরে বার বার আপনার সর্বশেষ দুটি ট্রানজেকশান এর নাম্বার কথা বলছেন কেন? বললাম তো ভুলে গেছি।

কাস্টমার ম্যানেজার – আমি দুঃখিত স্যার।

এবার মুল কথায় আসি যদি আমার লেনদেন ই ওদের কাছে মুল বিষয় হয়ে থাকে তবে আমি বা আমার কাছ থেকে এত তথ্য নিচ্ছে কেন? স্বাভাবিক ভাবেই আমি আমার লেনদেনের সব তথ্য ভুলে যেতে পারি, বা আমার এস এম এস মুছেও ফেলতে পারি। সেই ক্ষেত্রে তো ওরা আমাকে আমার সকল তথ্য প্রমানের ভিত্তিতে আমাকে সেবা দিতে বাধ্য :/

ওহে বিকাশের ম্যানেজমেন্ট তোমাদের সেবা নিয়ে কি আমাদের কিনে ফেলতে চাচ্ছো?

 পরিশেষে বলতে চাই আপনাদের সেবা নিয়ে আমি বা আমার মত অনেকেরই ক্ষোভ আছে। আপনারা অনেক ধরনের জুচ্চরি করেন যার প্রমান আছে ভুরি ভুরি।

 আরো জানতে দেখুন এই লিঙ্কে

সময় থাকতে ভালো হয়ে যান ।

Bkash Mobile Banking নিয়ে কিছু অভিজ্ঞতা ।

ভালো থাকবেন আর ভালো রাখবেন সবাইকে।

4 Comments

  • Reply
    DEEPAK DUTTA
    March 17, 2015 at 2:23 pm

    good

  • Reply
    Asif Shahide
    March 18, 2015 at 7:13 pm

    Aita ono kotha holo?Amake o aki kotha boleca.Amio sms delete kore falaci.

  • Reply
    Shawkat Ali
    March 21, 2015 at 8:12 pm

    Main point mone koraiya dilam: BKash er pick hour-e busy tahkar dorun mobile-a message-e-to asenaa. dhorun last 2ta transaction- aponar Account-a keu Taka pathiechen. kono msg ase naai, Balance check kore bujte parlen. sob somoy-to balance mone kore rakha hoy naa oneker-e. tokhon kivabe bujhben Taka account-a dhukeche kinaa. Las kotha holo- GP er moto eder-O tel(oil) beshi hoye geche. other mobile banking-a service charge BKash er cheye onek com. tahole BKash-k aamra No bolchi naa keno?

  • Reply
    Mohsin Ul hasan
    March 23, 2015 at 1:39 pm

    ধন্যবাদ ভাইয়া কমেন্টস করার জন্য। এটা সত্যি একটা গুরুত্বপুর্ন পয়েন্ট

Leave a Reply